class="post-template-default single single-post postid-3815 single-format-standard" >

১-১২ তমদের নিয়োগ সময়ের ব্যাপার মাত্র

হাইকোর্ট থেকেঃ গত ২৪/১০/১৭ ইং রোজ মঙ্গলবার এনটিআরসিএ এর বিরুদ্ধে ১-১২ তমদের আমার অধীনের নিয়োগ দাবীকৃত হার্ডহিটার তুরুপের তাস নামে অভিহিত ১১২ জনের নিয়োগ স্থগিতের মামলা এবং ১৪৯ জনের মেধাতালিকা ও শুন্যপদের তালিকা জানতে চাওয়া মামলার আজকের ধাপের ২য় শুনানি সম্পন্ন হয়। এ মামলা দুটোর ফলাফলকেই থিম ধরে সকল যৌথ শুনানির রুলজারিকৃত মামলার রায় দেওয়া হবে বলে আজও বিচারক মহোদয় জানিয়েছেন। এছাড়া আমার অধীনের ৯৪ জনের ও ৩১৭ জনের রুলজারিকৃত মামলা জুলাই/১৭ থেকে ফিক্সড থাকায় তা আজ যৌথ শুনানি সম্পন্ন হয়েছে।

সর্বমোট আজ ১০৪ টি মামলার যৌথ শুনানি সম্পন্ন হয়। আমার অধীনের ১১২ জনের নিয়োগ স্থগিতের এবং ১৪৯ জনের মেধাতালিকা ও শূন্যপদ জানতে চাওয়া মামলা দুটি আজ আবারও শুনানির সর্বশেষে মাননীয় বিচারক মহোদয় বলেন, ২৯/১০/১৭ ইং রোজ রবিবারে এনটিআরসিএ এর বিরুদ্ধে আমাদের ১-১২ তমদের সকল প্রকার অভিযোগ বিচারক মহোদয়ের নিকট লিখিত আকারে জমা দেওয়ার জন্য।

বিচারক মহোদয় হার্ড হিটার মামলা দুটিকে থিম ধরে আরো বলেন, সকল রুলজারিকৃত ফিক্সড মামলাই ২য় শুনানির আওতায় রয়েছে।

অতএব, প্রত্যেক রুলজারিকৃত ফিক্সড মামলার রিট পিটিশনে পৃথক পৃথকভাবে ফাইল আকারে লিখিত অভিযোগ সংযুক্ত করার জন্য বিচারক মহোদয় আজ বলেছেন।

# আজ মঙ্গলবার এনটিআরসিএ এর মামলায় তিনজন ব্যারিস্টার এবং একজন এ্যাড: মুভ করেন।

তবে সাথে ছিলেন ১-১২ তমদের এনটিআরসিএ মামলার প্রায় আরো ২০ জন আইনজীবী।

সর্বপ্রথম মুভ করেন আমার আইনজীবী এ্যাড: হুমায়ুন কবির বাদশা স্যার, যিনি প্রায় ২০ মিনিট ধরে আমাদের যৌক্তিক নিয়োগ দাবি তুলে ধরেন।

তারপরে প্রায় ১৫ মিনিট মুভ করেন ব্যারিস্টার আমীর-উল-ইসলাম স্যার।

তারপরে প্রায় ৩ মিনিট কথা বলার সুযোগ পান ব্যারিস্টার শাহদিন মালিক স্যার। সাথে ছিলেন আমার ও আমজাদ ভাইয়ের নিযুক্ত ব্যারিস্টার সৈয়দ জাহাঙ্গীর হোসেন স্যার।

এনটিআরসিএ এর পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার মাঈনুল হাসান স্যার। ডেপুটি অ্যাটর্নি হিসেবে ছিলেন তাপস কুমার।

এনটিআরসিএ এর আইনজীবী ব্যারিস্টার মাঈনুল হাসান স্যারের সাথে আজ আমার কথা হয়েছে। তিনি আমাকে বললেন, আমরা নিয়োগ পাবো, তবে হয়তো একটু দেরি হবে।

ধন্যবাদান্তে_

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম(সভাপতি)

বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধিত নিয়োগবঞ্চিত জাতীয় ঐক্য পরিষদ।

০১৭১০৭৯৭৮৯৫

০১৭৪৬২৬৪০১৭

Facebook Comments





Related News