class="post-template-default single single-post postid-1941 single-format-standard" >

ভারতে ফের বিক্ষোভের মূখে বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন

ভারতে আবারও ↔বিক্ষোভের মুখে বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন

 

 

ভারতে নির্বাসিত বাংলাদেশি   বিতর্কিত নারীবাদী লেখিকা তসলিমা নাসরিনকে স্থানীয়  জনতার বিক্ষোভের মুখে মহারাষ্ট্রের আওরঙ্গবাদ বিমানবন্দর থেকে শনিবার রাতে ফিরে যেতে হয়েছে। রবিবার আওরঙ্গবাদের পুলিশ জানিয়েছে, তসলিমা নাসরিন শহরের একটি হোটেলে থাকার জন্য বুকিং করেছিলেন – কিন্তু শনিবার সন্ধ্যায় মুম্বাই থেকে আওরঙ্গাবাদ বিমানবন্দরে নামার পরই তিনি প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়েন।

 

অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (এআইএমআইএম) নামে একটি রাজনৈতিক সংগঠনের শত শত কর্মী বিমানবন্দরের বাইরে জড়ো হয়ে ‘তসলিমা গো ব্যাক’ শ্লোগান দিতে থাকেন।

 

তাদের বক্তব্য ছিল, ইসলামবিরোধী লেখিকা তসলিমা নাসরিনকে কিছুতেই আওরঙ্গবাদ শহরে পা রাখতে দেওয়া হবে না। এই পরিস্থিতিতে পুলিশ তসলিমা নাসরিনকে বিমানবন্দরে বাইরে বেরোনোর অনুমতি দেয়নি। শেষ পর্যন্ত এয়ারপোর্টেই বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর তিনি পুলিশের পরামর্শ মেনেই ফিরতি বিমানে মুম্বাই ফিরে যান বলে জানা গেছে।

 

এর আগে হায়দ্রাবাদ ও কলকাতাসহ ভারতের বিভিন্ন শহরেই তসলিমা নাসরিনকে বিভিন্ন মুসলিম সংগঠনের বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয়েছে। এমন কী শারীরিকভাবেও তাকে লাঞ্ছনা করার চেষ্টা হয়েছে।

 

সুইডেনের পাসপোর্টধারী তসলিমা নাসরিন ভারতের ভিসা নিয়ে গত কয়েক বছর ধরে প্রধানত দিল্লিতেই বসবাস করেন। কলকাতায় তার প্রবেশের ওপর পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অঘোষিত নিষেধাজ্ঞা আছে, তবে নিরাপত্তাগত ঝুঁকির কারণে ভারতের অন্যত্রও যে তিনি অবাধে ঘোরাফেরা করতে পারেন তা নয়।

 

তবে আওরঙ্গাবাদের ঘটনা নিয়ে তসলিমা নাসরিন সংবাদমাধ্যমের সামনে এখনও মুখ খোলেননি। তাকে আপাতত একটি অজ্ঞাত স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। লেখিকা এই মুহূর্তে কোথায় আছেন, পুলিশ কর্তৃপক্ষও সে ব্যাপারে মুখ খুলতে রাজি হয়নি। সূত্র: বিবিসি বাংলা।

Facebook Comments





Related News